Home / লাইফস্টাইল / বর্ষায় পোশাকের ফাঙ্গাস দূর করার ৮ টি পদ্ধতি

বর্ষায় পোশাকের ফাঙ্গাস দূর করার ৮ টি পদ্ধতি

আশা করি সবাই ভাল আছেন। আজ আপনাদের মাঝে অরেকটি আর্টিকেল নিয়ে হাজির হলাম। আজ আপনাদের জানাবো বর্ষায় পোশাকের ফাঙ্গাস দূর করার ৮ টি পদ্ধতি নিয়ে। কালো, হলদে, সাদা নানা রঙের ফাঙ্গাস আমাদের চোখ রাঙাচ্ছে। তবে এই ফাঙ্গাসের সঙ্গে আমাদের দীর্ঘদিনের বাস। বর্ষায় জামাকাপড় ভালো করে না শুকোলো এই ফাঙ্গাস ধরে পোশাকে। বর্ষায় কাপড়ের যত্ন কী ভাবে নেবেন রইল তার পরামর্শ।বর্ষায় পোশাকের ফাঙ্গাস দূর করার ৮ টি পদ্ধতি

বর্ষায় পোশাকের ফাঙ্গাস দূর করার ৮ টি পদ্ধতি

কপালে ভাঁজ ফেলে দেয় বর্ষায় শুকনো না হওয়া স্যাঁতস্যাতে জামাকাপড়। রোদ না পেয়ে গন্ধ হয়ে যায়। তার মধ্যে আবার ফাঙ্গাস ধরে সাদা দাগ হয়ে যায়। কী করে বাঁচবেন এই সমস্যা থেকে? বর্ষায় কাপড়ের যত্ন নেবেন কী ভাবে? সব সময় মাথায় ঘোরে এই চিন্তা।

অনেকে আবার জামাকাপড় ঠিকমতো না শুকোলে ইস্ত্রি করে নেন এই ভেবে যে, ভাপে বাকিটা শুকিয়ে যাবে। কিন্তু ভালো করে না শুকিয়ে ওই ভাবে জামাকপড় ইস্ত্রি করে আলমারিতে রেখে দিলে, ভাঁজে ভাঁজে ফাঙ্গাস জমার রাস্তা পরিষ্কার করে দেওয়া হয়।

সাধারণত সুতির পোশাকেই ফাঙ্গাস ধরে সব চেয়ে বেশি।

পোশাককে ফাঙ্গাস থেকে বাঁচানোর পদ্ধতি

১. বর্ষার সময় অল্পক্ষণের জন্য সূর্যের দেখা পেলেই জামাকাপড় রৌদ্রে মেলে দিন। অল্প তাপেও জামার ভিজে ভাব দূর হবে।

২. আলমারিতে থাক করে রাখা জামাকাপড়ের মাঝে রেখে দিতে পারেন সিলিকা জেলের পাউচ। সিলিকা জেল বাতাসের আর্দ্রতা শুষে নেয়। এতে পোশাকে ফাঙ্গাস ধরে না।

৩. বর্ষার সময় জামাকাপড় ধোয়ার সময় ব্যবহার করতে পারেন ভিনিগার। একটা বড়ো বালতি জলে জামাকাপড় কাচার সময় ১ কাপ সাদা ভিনিগার যোগ করুন। বেশ কিছুক্ষণ ওই জলে জাপাকাপড় ভিজিয়ে রাখুন। ভিনিগার পোশাকের সাদা দাগ এবং গন্ধ দূর করতে সাহায্য করে।

৪. পোশাক থেকে ফাঙ্গাস তাড়াতে দু’টি কার্যকর উপাদন হল লেবু ও নুন। নুন-লেবু মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। সেই পেস্ট জামাকাপড়ে ফাঙ্গাস ধরা জায়গায় ভালো করে লাগিয়ে দিন। কিছুক্ষণ রেখে পোশাক ধুয়ে শুনিয়ে নিন। ফাঙ্গাস থাকবে না।

৫. তবে এ সবের মধ্যে ভালো পদ্ধতি হল গরম জলে জামা কাপড় ধুয়ে ফেলা।

৬. ফাঙ্গাস দূরে রাখতে ভেষজ পদ্ধতি হল নিমের ডাল ব্যবহার। জামাকাপড়ের মধ্যে নিমের ডাল জোগাড় করে রেখে দিতে পারেন। ফাঙ্গাস দূরে থাকবে।

৭. পোশাক ধোয়ার সময় ব্যবহার করতে পারেন বোরেক্স পাওডার। প্যাকেটে যে ভাবে লেখা আছে সেই ভাবে প্রয়োগ করুন। কাজ দেবে।

৮. এই পদ্ধতিটি সবার পক্ষে হয়তো মেনে চলা সম্ভব নয়। যাদের আলমারিতে যথেষ্ট জায়গা আছে তারা কাবার্ডের ভিতর লো ভোল্টেজের একটি ছোটো বালব্‌ লাগিয়ে নিতে পারেন। এতে আলমারি অল্প গরম থাকবে। জামাকাপড়ে ময়েশ্চার এবং ব্যাকটেরিয়া দু’টো থেকেই দূরে থাকবে।

বর্ষায় বাইরে বেরিয়ে পোশাকে কাদা লাগলে বাড়িতে এসে সঙ্গে সঙ্গে ধুয়ে ফেলবেন। না হলে কাদার দাগ উঠতে চাইবে না। মনে রাখবেন বর্ষায় কাপড়ের বাড়তি যত্ন নেওয়াটা জরুরি। না হলে দামি জামা-কাপড় নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

ভাল থাকুন, সুস্থ থাকুন, নিজেকে এবং পরিবারকে ভালোবাসুন। আমাদের লেখা আপনার কেমন লাগছে ও আপনার যদি কোনো প্রশ্ন থাকে তবে নিচে কমেন্ট করে জানান। আপনার বন্ধুদের কাছে পোস্টটি পৌঁছে দিতে দয়া করে শেয়ার করুন। পুরো পোস্টটি পড়ার জন্য আপনাকে অনেক ধন্যবাদ।

Check Also

ত্রিশের পরে নারীরা শরীর ফিট রাখবেন যেভাবে

ত্রিশের পরে নারীরা শরীর ফিট রাখবেন যেভাবে

আশা করি সবাই ভাল আছেন। আজ আপনাদের মাঝে অরেকটি আর্টিকেল নিয়ে হাজির হলাম। আজ আপনাদের ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *